এসএসসি এসাইনমেন্ট ২০২১এসাইনমেন্ট

এসএসসি রসায়ন এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১

২০২১ সালের এস এস সি রসায়ন বিজ্ঞান এসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর । এসএসসি রসায়ন এসাইনমেন্ট সমাধান আমাদের ওয়েবসাইটে যুক্ত করা হয়েছে । আপনি যদি ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী হোন তাহলে এই পোষ্টটি আপনার জন্য ।

এসএসসি রসায়ন এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট dshe.gov.bd-এ গত ১৮ জুলাই তারিখে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য নির্ধারিত এসাইনমেন্ট প্রকাশ করা হয় । নোটিশ অনুযায়ী, প্রতি বিভাগের শিক্ষার্থীদের গ্রুপভিত্তিক বিষয়ের উপর প্রতি সপ্তাহে ০২ টি করে ১২ সপ্তাহের জন্য মােট ২৪ টি অ্যাসাইনমেন্ট প্রণয়ন করা হবে । অর্থ্যাৎ মােট ৩২টি অ্যাসাইনমেন্ট থেকে একজন শিক্ষার্থীকে চতুর্থ বিষয় বাদ দিয়ে প্রতিটি গ্রুপভিত্তিক বিষয়ের ৮টি করে মােট ২৪টি অ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন করতে হবে। ঐচ্ছিক বিষয়ের জন্য কোনাে অ্যাসাইনমেন্ট তৈরি করতে হবে না। আজকে আমরা বিজ্ঞান বিভগের জন্য নির্ধারিত রসায়ন এসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও নমুনা উত্তর দেখব ।

এস এস সি পদার্থ এসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর

বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থীরা তাদের বিভাগভিত্তিক বিষয় হিসেবে রসায়নের উপর এসাইনমেন্ট জমা দিবে । ১ম ও ২য় এসাইনমেন্ট টপিক যথাক্রমে মূল বইয়ের তৃৃতীয়  অধ্যায় – “পদার্থের গঠন” এবং চতুর্থ অধ্যায় – “পর্যায় সারণি” থেকে নেওয়া হয়েছে ।

এসাইনমেন্ট নং ১ 

প্রতীকের পাশে উল্লেখিত  ভরসংখ্যাবিশিষ্ট মৌলের নিউট্রন সংখ্যা, বাের মডেল অনুসারে পরমাণুর গঠনের চিত্র, শক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস এবং উপশক্তিস্তরে (অরবিটালসমূহে)। ইলেকট্রন বিন্যাস সংশ্লিষ্ট একটি প্রতিবেদন প্রণয়ন ।  ছবি লিংক)

  • Na(11), ভরসংখ্যা -23
  • P(15), ভরসংখ্যা -31
  • K(19), ভরসংখ্যা -40
  • Cu(29), ভরসংখ্যা -63

উত্তর 

পারমাণবিক সংখ্যা বা প্রােটন সংখ্যা: কোন মৌলের একটি পরমাণুতে প্রােটনের সংখ্যাকে পারমাণবিক সংখ্যা বলা হয়।

ভরসংখ্যা : কোন মৌলের পরমাণুতে প্রােটন ও নিউট্রনের সমষ্টিকে ভরসংখ্যা হিসেবে প্রকাশ করা হয়।

নিউট্রন সংখ্যা নির্ণয়

পারমাণবিক সংখ্যা বা ইলেকট্রন সংখ্যা ও ভরসংখ্যা জানা থাকলে নিউট্রন সংখ্যা জানা যায়।

নিউট্রন সংখ্যা = ভর সংখ্যা (A)  – প্রােটন সংখ্যা (Z)

একটি পরমাণুর শক্তিস্তর বা ইলেকট্রনের শক্তিস্তরকে (সাধারণভাবে প্রধান শক্তিস্তর নামে পরিচিত) পরমাণুর নিউক্লিয়াসের চারিদিকে ঘূর্ণায়মান ইলেক্টনের কক্ষপথ বলা যেতে পারে। আমরা জানি কোন মৌলের শক্তিস্তরে সর্বোচ্চ 2n2 (two n Square) ইলেকট্রন থাকতে পারে। যেখানে n= 1234….. এখানে n হচ্ছে। কক্ষপথ বা শক্তিস্তর। যেমন, n এর মান 1 হলে প্রথম শক্তিস্তর 2 হলে দ্বিতীয় শক্তিস্তর।

অরবিটাল বা উপশক্তিস্তর : নিউক্লিয়াসের চারদিকে যে নির্দিষ্ট ত্রিমাত্রিক স্থানে কোন নির্দিষ্ট শক্তিস্তরে ইলেকট্রনের অবস্থানের সম্ভাবনা বেশি থাকে তাকে অরবিটাল বা উপশক্তিস্তর বলে।

অর্থাৎ নিউক্লিয়াসের চতুর্দিকে ইলেকট্রনের আবর্তনের সর্বাধিক সম্ভাব্য অঞ্চলকে অরবিটাল বলে। কোণ শক্তি স্তরের মানকে (অরবিটকে) n দ্বারা এবং উপরের সংখ্যাকে (অরবিটালকে)। দ্বারা প্রকাশ করা হয়। s,pd,f কে উপশক্তিস্তর বলে। যেমন: 3d, 4p, 5f ইত্যাদি।

এখানে, সােডিয়ামের(Na) পারমাণবিক সংখ্যা বা প্রােটন(Z) সংখ্যা হচ্ছে 11 এবং ভর সংখ্যা(A) 23

তাহলে আমরা জানি, নিউট্রন সংখ্যা = ভর সংখ্যা(A) – প্রােটন সংখ্যা(Z)
= 23 – 11
= 12

বাের পরমাণু মডেল অনুসারে নিম্নের সােডিয়াম এর চিত্র অঙ্কন করা হলাে:
204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n

সােডিয়ামের(Na) শক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে: 2,8,1

সােডিয়ামের(Na) উপশক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে:204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n


এখানে, ফসফরাসের (p) পারমাণবিক সংখ্যা বা প্রােটন(2) সংখ্যা হচ্ছে 15 এবং ভর সংখ্যা(A) 31

তাহলে আমরা জানি, নিউট্রন সংখ্যা = ভর সংখ্যা(A) – প্রােটন সংখ্যা(Z)
= 31 – 15
= 16

বাের পরমাণু মডেল অনুসারে নিম্নের ফসফরাস এর চিত্র অঙ্কন করা হলাে:

204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n

ফসফরাসের (p) শক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে: 2,8,5

ফসফরাসের (p) উপশক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে: 204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n


এখানে, পটাশিয়ামের (k) পারমাণবিক সংখ্যা বা প্রােটন(Z) সংখ্যা হচ্ছে 19 এবং ভর সংখ্যা(A) 40

তাহলে আমরা জানি, নিউট্রন সংখ্যা = ভর সংখ্যা(A) – প্রােটন সংখ্যা(Z)
= 40 – 19
= 21

বাের পরমাণু মডেল অনুসারে নিম্নের পটাশিয়াম এর চিত্র অঙ্কন করা হলাে:

204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n


পটাশিয়ামের (k) শক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে: 2,8,৪,1

পটাশিয়ামের (k) উপশক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে: 204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n


এখানে, কপারের (cu) পারমাণবিক সংখ্যা বা প্রােটন(Z) সংখ্যা হচ্ছে 29 এবং ভর সংখ্যা(A) 63

তাহলে আমরা জানি, নিউট্রন সংখ্যা = ভর সংখ্যা(A) – প্রােটন সংখ্যা(Z)
= 63 – 29
= 34

বাের পরমাণু মডেল অনুসারে নিম্নের কপার (cu) এর চিত্র অঙ্কন করা হলাে:

204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n

কপারের (cu) শক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে: 2,8,18,1
কপারের (cu) উপশক্তিস্তরে ইলেকট্রন বিন্যাস হচ্ছে: 204253285-2906476972939350-6118772075880387646-n


এসাইনমেন্ট নং ২ 

Li Be
Na Mg

মৌল চারটির ইলেকট্রন বিন্যাসের আলােকে পর্যায় সারণিতে অবস্থান, তুলনামূলক আয়নিকরণ শক্তি এবং মৌল সংশ্লিষ্ট গ্রুপ বা শ্রেণির বৈশিষ্ট্য সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন প্রণয়ন ।  ছবি লিংক)


২০২১ সালের এসএসসির অন্যান্য বিষয়ের উত্তর দেখুন এখান থেকে  অথবা চোখ রাখুন আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেইজে ।

স্বীকারোক্তিঃ এখানে উপস্থাপিত সকল তথ্যই দক্ষ ও অভিজ্ঞ লোক দ্বারা ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করা। যেহেতু কোন মানুষই ভুলের ঊর্দ্ধে নয় সেহেতু আমাদেরও কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল থাকতে পারে।সে সকল ভুলের জন্য আমরা আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী এবং একথাও উল্লেখ থাকে যে এখান থেকে প্রাপ্ত কোন ভুল তথ্যের জন আমরা কোনভাবেই দায়ী নই এবং আপনার নিকট দৃশ্যমান ভুলটি আমাদেরকে নিম্নোক্ত মেইল / পেজ -এর মাধ্যমে অবহিত করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

ই-মেইলঃ admin@admissionwar.com অথবা এইখানে ক্লিক করুন।

admissionwar-fb-pageaw-fb-group

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button