এইচএসসি পৌরনীতি ২য় পত্র সাজেশন

এইচএসসি পৌরনীতি ২য় পত্র বিষয়টি খুবই গুরত্বপূর্ণ। কারণ এই বিষটি তোমাকে পরবর্তীতে অনেক সাহায্য করবে। বাংলাদেশ বিষয়ক অনেক সাধারন জ্ঞান সন্নিবেশিত আছে । এতে করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সময় তোমাকে আলাদা করে সাধারন জ্ঞান পড়তে হবে না ।  বইটিকে পাঠ্য বই হিসেবে না দেখে গল্পের বই হিসেবে চিন্তা করে মজা নিয়ে পড়তে চেষ্টা করবে । আর সিকুয়্যান্স অনুসারে পড়ার চেষ্টার করবে তাহলে মনে থাকলে ।

অনেকের মনে প্রশ্ন থাকে কোন লেখকের বইটি সবচেয়ে ভাল । তবে এক্ষেত্রে তোমরা মোজাম্মেল হক স্যারের বইটা ফলো করতে পার কারণ বইটি অনেক তথ্যবহুল।

যারা পৌরনীতি ১ম পত্রের সাজেশনটি পাওনি তারা নিচের লিংক থেকে দেখে নিতে পার।

 এইচএসসি পৌরনীতি ১ম পত্র সাজেশন

কথা না বাড়িয়ে চল দেখে নেওয়া যাক পৌরনীতি ২য় পত্র সাজেশনটি।

১ম অধ্যায়: ব্রিটিশ ভারতে প্রতিনিধিত্বশীল সরকারের বিকাশ

(ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি, পলাশীর যুদ্ধ, বক্সারের যুদ্ধ, দৈতশাসন, চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত, সিপাহি বিদ্রোহ এসব টীকাগুলো জ্ঞানমূলক এবং নৈবক্তিকের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাই এসব ঘটনার সাল জানা বাধ্যতামূলক। অন্যকিছু তেমন গুরুত্বপূর্ণ না। সালটা পড়ে বাকিগুলো স্কীপ করলেই হবে)

জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ টপিকস:

কংগ্রেস প্রতিষ্ঠা ,মুসলিম লীগ, জিন্নাহর দ্বিজাতিতত্ত্ব,মাউন্টব্যাটেন পরিকল্পনা,খিলাফত আন্দোলন, অসহযোগ, ব্যাঙ্গল প্যাক্ট

প্রয়েগমূলক বা উচ্চতরদক্ষতা ভিত্তিক:

বঙ্গভঙ্গ ও বঙ্গভঙ্গ রদ: সৃজনশীল প্রশ্নের জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এর খুটিনাটি কারণ, ফলাফল সব পড়তে হবে।

ভারত শাসন আইন:  ভারত শাসন আইন ১৯১৯, ১৯৩৫, ১৯৪৭ এই তিনটি আইনের বৈশিষ্ট্যগুলো ভাল করে পড়লেই হবে। সৃজনশীল আসলে ১৯৩৫ ও ১৯৪৭ এই দুটি থেকেই আসবে।

লাহোর প্রস্তাব: এই অধ্যায়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ টপিক্স যা না পড়লেই নয়। সৃজনশীল এর জন্য ৯০% কমন এটি। এর খুঁটিনাটি সব ভালভাবে পড়তে হবে।

২য় অধায়: পাকিস্তান থেকে বাংলাদেশ

জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ টপিকস:

আগরতলা মামলা, গন অভ্যুত্থান (তবে সবটা চ্যাপ্টার সম্পর্কে ধারণা রাখা ভাল)

প্রয়েগমূলক বা উচ্চতরদক্ষতা ভিত্তিক:

ভাষা আন্দোলন: এখান থেকে শুরু করতে পার কারন ভাষা আন্দোলনের আগের বিষয়গলো তেমন একটা গুরুত্বপূর্ণ নয় । তবে এই অংশটুকু সৃজনশীলের জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাই ভালভাবে পড়তে হবে।

ছয়দফা: খুবই গুরুত্বপূর্ণ ।

 নির্বাচন: ১৯৭০ এর নির্বাচন এ আওয়ামীলীগ অর্জিত আসনসংখ্যাগুলো খুব গুরুত্বপূর্ণ।
মুক্তিযুদ্ধ: এখান থেকে প্রশ্ন আসার সম্ভাবনা অনেক ।

৩য় অধ্যায়: বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভ

জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ টপিকস:

হাজী শরীয়তউল্লাহ, ফরায়েজি আন্দোলন ও অন্যান্য ব্যক্তিদের সম্পর্কেও ধারনা নিয়ে রাখতে হবে ।

প্রয়েগমূলক বা উচ্চতরদক্ষতা ভিত্তিক:

শেরে বাংলাপ্রয়েগমূলক বা উচ্চতরদক্ষতা ভিত্তিক প্রশ্নের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কৃষক ও বাংলার অবহেলিত মানুষের জন্য তার অবদানটুকু সুচারুভাবে ফুটিয়ে তুলতে হবে ।

তিতুমীর :  তিতুমীরের সম্পূর্ণ ইতিহাস ভাল করে পড়তে হবে। বাশের কেল্লাটা গুরুত্ব বেশি থাকবে।

হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী: গনতন্ত্রের মানসপুত্র বলা হয় কেন। এই আলোচনাটা ই গুরুত্বপূর্ণ।

 

৪র্থ অধ্যায়:বাংলাদেশর সংবিধান

অনেক শিক্ষার্থীর কাছে এই অধ্যায়টি অনেক কঠিন বলে মনে হয় । কঠিন বলে একবারে বাদ দিয়ে দেওয়া যাবে না কারন এখানে থেকে অরেক নৈবত্তিক প্রশ্ন আসে । আর মূলনীতি, মৌলিক অধিকারগুলো মন দিয়ে পড়ার চেষ্টা করবে ।

সংবিধান সংশোধনী: প্রথম, চতুর্থ, দ্বাদশ, ত্রয়োদশ, চতুর্দশ, পঞ্চদশ এই সংশোধনীগুলো ভাল করে পড়লেই হবে।

 

৫ম অধ্যায়:বাংলাদেশের সরকার ও প্রশাসনিক কাঠামো

এই অধ্যায়টি অনেক সহজ তাই এটাকে বাদ দেওয়া বুদ্ধিমানের কাজ নয় । এই অধ্যায় থেকে বড় প্রশ্নে চেয়ে ছোট প্রশ্ন বেশি আসে।

তবে একটু বেশি গুরুত্বপূর্ণ হল : জাতীয় সংসদ, প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি এই তিনটা টপিক্স

টেস্ট পরবর্তী দিকনির্দেশনা (এইচ.এস.সি প্রস্তুতি-২০১৮)

৬ষ্ঠ অধ্যায়: স্থাানীয় শাসন

এই অধ্যায়ে তেমন কোন গুরুত্বপূর্ণ টপিকস নেই । তবে বাদ না দিয়ে এটা সম্পর্কে ধারনা রাখতে হবে ।

তবে এই অধ্যায়ে যেগুলো পড়তে পার :

স্থানীয় শাসন ও স্থানীয় স্বাস্ততশাসন এর পার্থক্য ও গুরুত্ব

ইউনিয়ন, পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনটা

৭ম অধ্যায়: সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান

মোটামুটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় এটি ।  এই অধ্যায় থেকে যে টপিকসগুলো পড়তে পার :

কর্মকমিশন, নির্বাচন কমিশন, দুদক

শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি কিভাবে নিবে(এইচএসসি-2018)

৮ম অধ্যায়: বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থা

 

বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থার তথ্যগুলো মনে রাখা একটু কষ্টকর। মোটামুটি রিড়িং পড়ে বিষয়টা জেনে রাখতে পার ।

৯ম অধ্যায়: বাংলাদেশের বৈদেশিক নীতি

জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ টপিকস:

জাতিসংঘ বাদে অন্যান্য সংস্থাগুলো জ্ঞান ও অনুধাবন এর জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

প্রয়েগমূলক বা উচ্চতরদক্ষতা ভিত্তিক:

বাংলাদেশের বৈদিশিক নীতি,  সার্ক ও জাতিসংঘ ।

 

১০ম অধ্যায়: নাগরিক সমস্যা ও আমাদের করুনণীয়

এই অধ্যায়টি একদুয়েক বার রিডিং পড়লেই যথেষ্ট । আর এখান থেকে একটি প্রশ্ন আসবেই ।


 

আমাদের অন্যান্য সাজেশনগুলো পেতে আমাদের ফেইজবুক পেইজে চোখ রাখুন।

 

Back to top button
Close