চাকরির নিয়োগ

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ ২য় ধাপের ফলাফল ২০২২ (প্রাথমিক রেজাল্ট ২০২২)

প্রাইমারি/ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২য় ধাপের ফলাফল ২০২২ । প্রাইমারি রেজাল্ট ২০২২ (২য় ধাপ) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট www.dpe.gov.bd তে প্রকাশ করা হয়েছে  ।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২য় ধাপের ফলাফল ২০২২

কত তারিখে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে, একইসাথে ফলাফল কীভাবে চেক করবেন এবং কিভাবে প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ ২য় ধাপের পরীক্ষার রেজাল্ট পিডিএফ ডাউনলোড করবেন তার সকল তথ্য আমরা আপনাদের জানাব। তাই আপনি যদি প্রাইমারি সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল পেতে চান পুরো নিবন্ধনটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ভালভাবে পড়ুন। উল্লেখ্য, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের লিখিত পরীক্ষা গত ২২শে এপ্রিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১ম ধাপের পরীক্ষার ফল প্রকাশও করা হয়েছে এবং মৌখিক পরীক্ষার তারিখ প্রকাশ করা হবে।

একনজরে
প্রতিষ্ঠানঃ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

পরীক্ষার নামঃ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ (২য় ধাপ)

পরীক্ষার তারিখঃ ২০শে মে, ২০২২ (১১ ঘটিকা)

পরীক্ষার সময়ঃ ৬০ নম্বর

সর্বমোট নম্বরঃ ৮০ নম্বর

ওয়েবসাইটঃ dpe.gov.bd

প্রাইমারি নিয়োগ ফলাফল ২০২২

২০ মে ২০২২ তারিখ শুক্রবার দেশের ৩০টি জেলার প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ দ্বিতীয় ধাপের প্রাইমারি নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সরকারি প্রাইমারি বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় দ্বিতীয় ধাপে দেশের ত্রিশটি জেলা থেকে প্রায় ১৩ লক্ষ ৬০ হাজার ৩১২ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এত বেশি প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ার দরুন ফলাফল প্রকাশেও কিছুটা বিলম্ব হয়ে থাকে। প্রথম ধাপ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ পায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার প্রায় ২০ দিন পরে।

সর্বমোট আবেদনের সঠিক তথ্য

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ইতিহাসে এটি এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি। ২০২০ সালের ২৫শে অক্টোবর অনলাইনে প্রাথমিক পরীক্ষার আবেদন শুরু হয় এবং আবেদন করে ১৩ লাখ ৯ হাজার ৪৬১ জন। সকল এলাকার ভেতর সবচেয়ে বেশি আবেদন পরে ঢাকা বিভাগের ২ লাখ ৪০ হাজার, এরপর রাজশাহীতে ২ লাখ ১০ হাজার, খুলনায় ১ লাখ ৭৮ হাজার ৮০৩, ময়মনসিংহে ১ লাখ ১২ হাজার, বরিশালে ১ লাখ ৯ হাজার ৩৪৪, সিলেটে ৬২ হাজার ৬৬৭ এবং রংপুর বিভাগে ১ লাখ ৬০ হাজার ১৬৬টি আবেদন জমা পড়েছে।

২য় ধাপ প্রাইমারি রেজাল্ট ২০২২ দেখার নিয়ম

আপনি কি জানেন কিভাবে ২য় ধাপের প্রাথমিক পরীক্ষার রেজাল্ট চেক করতে হয়? প্রাইমারি ফলাফল প্রকাশের পর, বিভিন্ন সামাজিক সাইট রয়েছে যা আপনাকে ভুল তথ্য দেয় এবং অনুসন্ধান করতে যেয়ে অনেক বিপদের সম্মুখীন হতে হয়। আপনি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ পরীক্ষা (২য় ধাপ) সম্পর্কে আপডেটেড এবং সম্পূর্ণ সঠিক তথ্য আমাদের Admissionwar ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পেয়ে যাবেন। পরীক্ষার সঠিক ফলাফল পাওয়ার জন্য নিম্নে উল্লেখিত পদ্ধতিসমূহ অনুসরণ করুন।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২য় ধাপের ফলাফল ২০২২

Primary-Result-2nd-step

১। প্রথমে আপনি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন

২। এই ওয়েবসাইটে প্রবেশের জন্য এই লিংক-এ ক্লিক করুন – dpe.gov.bd

৩। তারপর নোটিশ বোর্ড এর সন্ধান করুন

৪। নোটিশ বোর্ড এ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ রেজাল্ট ২০২২ সম্পর্কিত তথ্যের সন্ধান করুন

৫। খুজে পাওয়ার পর লিংকে ক্লিক করুন

৬। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার রেজাল্ট পিডিএফ ফাইলটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডাউনলোড শুরু হবে।

সংশোধিত সঠিক নম্বর বণ্টন

আপনাদের হাতে পরীক্ষার ফলাফল পাওয়ার পরেও অনেক সময় সন্দেহ থাকতে পারে নম্বর বন্টন নিয়ে। সে ক্ষেত্রে আমরা নম্বর বন্টনের সম্পূর্ণ সঠিক এবং সনশোধিত প্রক্রিয়া তুলে ধরছি।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষায় নির্ধারিত ২০ নম্বর বিভাজন সংক্রান্ত নতুন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। উপসচিব মোহাম্মদ কবির উদ্দীনের সই করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, কেন্দ্রীয় প্রাথমিক শিক্ষক নির্বাচন কমিটির ১২৫তম সভার সুপারিশ মোতাবেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত ২০ নম্বরের বিভাজন সংক্রান্ত প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ২০০৯ সালের ১ এপ্রিলের জারি করা পত্রে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষার নম্বর বণ্টন কিছুটা সংশোধন করা হয়েছে।

  • মৌখিক পরীক্ষার নতুন নম্বর বণ্টনে শিক্ষাগত যোগ্যতায় ১০ নম্বর করা হয়েছে। এর মধ্যে এসএসসি/সমমানের ফলে ৪ নম্বর, এইচএসসি/সমমানের ফলে ৪ এবং স্নাতক/সমমানে ২ নম্বর নির্ধারণ করা হয়।
  • এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমানের ক্ষেত্রে প্রথম বিভাগ/জিপিএ-৩ বা তার ওপরে ৪ নম্বর, দ্বিতীয় বিভাগ/জিপিএ-২ থেকে ৩-এর কম হলে ৩ নম্বর, তৃতীয় বিভাগ/জিপিএ-১ থেকে ২-এর কম হলে ১ নম্বর দেওয়া হবে।
  • এছাড়া, স্নাতক/সমমানের ক্ষেত্রে প্রথম বিভাগ/সমতুল্য সিজিপিএ ৪ স্কেলে ৩ বা তার ওপরে অথবা পাঁচ স্কেলে ৩ দশমিক ৭৫, বা তার ঊর্ধ্বে ২ নম্বর, দ্বিতীয় বিভাগ/সমতুল্য সিজিপিএ-৪ হিসেবে ২ দশমিক ২৫ থেকে ৩-এর কম ও ৫ স্কেলে ২ দশমিক ৮ থেকে ৩ দশমিক ৭৫ -এর কম হলে এক নম্বর দেওয়া হবে।
  • বাকি ১০ নম্বর ব্যক্তিত্ব, প্রকাশ ক্ষমতা, সাধারণ জ্ঞান ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

আশা করি আপনাদের কাছে আমরা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সকল সঠিক এবং সংশোধিত তথ্য পৌঁছে দিতে পেরেছি, এরপরও আপনাদের মনে যে কোনো রকমের প্রশ্ন থাকলে আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন। এছাড়াও যেদিন দ্বিতীয় ধাপ পরীক্ষার ফলাফল অনলাইনে প্রকাশ করা হবে, সেদিন ফলাফলের পিডিএফ ফাইলটি এই পোস্টে আপলোড করা হবে।

 

স্বীকারোক্তিঃ এখানে উপস্থাপিত সকল তথ্যই দক্ষ ও অভিজ্ঞ লোক দ্বারা ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করা। যেহেতু কোন মানুষই ভুলের ঊর্দ্ধে নয় সেহেতু আমাদেরও কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল থাকতে পারে।সে সকল ভুলের জন্য আমরা আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী এবং একথাও উল্লেখ থাকে যে এখান থেকে প্রাপ্ত কোন ভুল তথ্যের জন আমরা কোনভাবেই দায়ী নই এবং আপনার নিকট দৃশ্যমান ভুলটি আমাদেরকে নিম্নোক্ত মেইল / পেজ -এর মাধ্যমে অবহিত করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

ই-মেইলঃ admin@admissionwar.com অথবা এইখানে ক্লিক করুন।

admissionwar-fb-pageaw-fb-group

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button