বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি

কোন বিশ্ববিদ্যালয় কিভাবে ভর্তি পরীক্ষা নিবে

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

করোনা মহামারীর কারণে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের তো অটো-পাস দেওয়া হলো কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে কোন বিশ্ববিদ্যালয় কিভাবে ভর্তি পরীক্ষা নিবে নিশ্চয়ই আপনি এটা জানতে খুব আগ্রহী। আজ আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে   সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করবো ।

কোন বিশ্ববিদ্যালয় কিভাবে ভর্তি পরীক্ষা নিবে

শনিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২১ তারিখ, একযোগে ১১টি শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি (HSC) ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়। যার মধ্যে দিয়ে প্রায় পৌনে ১৪ লাখ শিক্ষার্থীর অপেক্ষা ও দুশ্চিন্তার অবসান ঘটে। অপেক্ষার অবসান তো ঘটেছে কিন্তু দুশ্চিন্তার অবসান কি আসলেই কেটেছে?

এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের তো ব্যবস্থা হলো কিন্তু কোন বিশ্ববিদ্যালয় কিভাবে ভর্তি পরীক্ষা নিবে এ নিয়ে দুশ্চিন্তা রয়েছে অনেক শিক্ষার্থীদের মধ্যে। আজ এই পোস্টের মাধ্যমে এসব শিক্ষার্থীদের দুশ্চিন্তা কমানোর প্রচেষ্টা করব ।

১৯টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি যে ১৯টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নেওয়া হবে তা হলোঃ- কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ত্রিশালের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র ইউনিভার্সিটি, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিভিটাল ইউনিভার্সিটি, জামালপুরের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুনেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববির্যলয় এবং নেত্রকোনার শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়।


পরীক্ষা পদ্ধতিঃ

মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা এবং বিজ্ঞান- ৩টি বিভাগের জন্য মোট ৩টি ভর্তি পরীক্ষা হবে। এক্ষেত্রে বিভাগ পরিবর্তনেরও সুযোগ থাকবে৷ পরীক্ষার্থী নিজ নিজ বিভাগে ১০০ নম্বরের বহুনির্বাচনী প্রশ্নে পরীক্ষা দেবেন। প্রশ্ন উচ্চমাধ্যমিকের পাঠ্যসূচি অনুযায়ী করা হবে।

পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে পরীক্ষার্থীদের একটি স্কোর দেওয়া হবে। এরপর গুচ্ছের মধ্যে থাকা ১৯টি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজ নিজ শর্ত ও চাহিদা উল্লেখ করে ভর্তির বিষয়ে দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞাপন প্রকাশ করবে। পরীক্ষায় পাওয়া স্কোর অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়গুলো শিক্ষার্থী ভর্তি করবে। এরপরে আর কোনো পরীক্ষা হবে না।

২০১৯ ও ২০২০ সালের এইচএসসি (HSC) ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা গুচ্ছ পদ্ধতির অন্তর্ভুক্ত ১৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। তবে ২য় বার পরীক্ষা দেওয়া শিক্ষার্থীরা কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হতে পারবেন এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় ঠিক করবে।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত ভাবে জানতে এই পোস্টটি পড়ুন

আরও পড়ুন: বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির সহায়ক পিডিএফ বই

সমন্বিত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

সমন্বিত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে মোট ৭টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এগুলো হলোঃ- বাংলাদেশ কৃষি বিশ্বাবিদ্যালয়, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সে বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এবং খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

গত বছরের মতো এবারও কৃষি ও কৃষির প্রাধান্য থাকা ৭টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত বা গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য লুৎফুল হাসান জানান, এবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে এই ৭টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা হবে ।

সমন্বিত ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

বাংলাদেশের ৫টি ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্ববিদ্যালয় হলোঃ- বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ডুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট)।


এই ৫টি ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ডুয়েট বাদে বাকি ৪টি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে নীতিগতভাবে একমত হলেও এখনো নিশ্চিতভাবে কিছু জানা যায়নি। তবে এ বিষয়ে বুয়েটের শিক্ষা পরিষদ (একাডেমিক কাউন্সিল) একটি প্রস্তাব দিয়েছিলো কিন্তু তা নিয়ে কোনো চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

সমন্বিত ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত ভাবে জানতে এই পোস্টটি পড়ুন

মেডিকেল কলেজ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস (MBBS) ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিলো আগামী ৫ মার্চ ২০২১ এবং ডেন্টালের ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিলো ২ এপ্রিল ২০২১। কিন্তু এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশে দেরি হওয়ায় উক্ত তারিখ পিছিয়ে দেয়ার প্রাথমিক সিদ্বান্ত হয়েছে। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও নেওয়া হয়নি।

স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (শিক্ষা) এ.কে.এম আহসান হাবীব যিনি ভর্তি পরীক্ষার সদস্যসচিবের দায়িত্বে রয়েছেন তিনি বলেছেন, ২ এপ্রিল ২০২১ তারিখে এমবিবিএস (MBBS) ভর্তি পরীক্ষা এবং ৩০ এপ্রিল ২০২১ তারিখে ডেন্টালের ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠিয়েছেন। এটি একটি প্রস্তাব মাত্র, এখনো এটি চূড়ান্ত হয়নি। পর্যালোচনা সভা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ এবং কিভাবে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে সে বিষয়ে ধারনা পাওয়া যাবে। তখন আপনারা মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষার পদ্ধতি সম্বন্ধে যাবতীয় তথ্য www.admissionwar.com থেকে জানতে পারবেন।


মেডিকেল কলেজ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত ভাবে জানতে এই পোস্টটি পড়ুন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতিতে এবার একটু পরবিবর্তন হবে। এবার ২০০ নম্বরের পরিবর্তে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০০ নম্বরের ভিভিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে হবে। এই ১০০ নম্বরের মধ্যে লিখিত (Written) ও বহুনির্বাচনী (MCQ) পরীক্ষার মোট নম্বর থাকবে ৮০ যার মধ্যে লিখিত পরীক্ষায় ৪০ নম্বর এবং বহুনির্বাচনী অংশে ৪০ নম্বর থাকবে  আর এসএসসি (SSC) ও এইচএসসি (HSC) ফলাফল থেকে ২০ নাম্বর নেওয়া হবে। তবে এবার করোনা মহামারীর কারণে এবার সব বিভাগীয় শহরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র থাকবে। আরো বিস্তারিত জানতে এই পোষ্টটি পড়ুন

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বহুনির্বাচনী (MCQ) প্রশ্নে ভর্তি পরীক্ষা হবে। কেবল ২০২০ সালের এইচএসসি (HSC) ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ  শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত এই পোস্টের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় নিজেদের মতো করে ভর্তি পরীক্ষা নেবে। ১০০ নম্বরের পরীক্ষার ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে। তবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে এখনও বিস্তারিত ভাবে জানা যায়নি।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে আমাদের ওয়েবসাইট www.admissionwar.com থেকে জানতে পারবেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলেজ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলেজগুলোতে ৪ বৎসর মেয়াদী স্নাতক (সন্মান) এবং ৩ বৎসর মেয়াদী স্নাতক (পাস) কোর্সে ১ম বর্ষে মোট আসন আছে ৮.৫ লাখের বেশি। এর মধ্যে ৪ বৎসর মেয়াদী স্নাতক (সন্মান) ১ম বর্ষে সর্বমোট আসন আছে ৪ লাখ ৩৬ হাজার ১৩৫ এবং ৩ বৎসর মেয়াদী স্নাতক (পাস) কোর্সে আসন আছে ৪ লাখ ২১ হাজার ৯৯টি। ৪ বৎসর মেয়াদী স্নাতক (সম্মান) পড়ানো হয় এমন কলেজ আছে ৮৬৭টি।

মোঃ মশিউর রহমান যিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য তিনি জানান, তাদের মধ্যে একটি আলোচনা হয়েছে মোট ১৩টি শতবর্ষী কলেজে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হবে। তবে এখনো চূড়ান্ত হয়নি। যদি এটা না হয়, তাহলে গত কয়েক বছরের মতোই সব কলেজে এসএসসি (SSC) ও এইচএসসি (HSC) এবং সমমানের পরীক্ষার ফলের উপর ভিত্তি করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলেজ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পন্ন করা হবে। এইচএসসির ফলাফল ঘোষণার পর যত দ্রুত সম্ভব ভর্তির কাজটি Online-এ করা হবে। আরো বিস্তারিত জানতে এই পোষ্টটি পড়ুন

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি

বর্তমানে বাংলাদেশের ১০৭টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৯৭টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রম চালু আছে।  বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো একটি অভিন্ন আইনের অধীনে চললেও প্রতিটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পৃথক ব্যবস্থায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পন্নসহ শিক্ষা কার্যক্রমগুলো পরিচালনা করে। তবে এখন পর্যন্ত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে নতুন কোনো সিদ্ধান্তর ব্যাপারে জানা যায়নি। অর্থাৎ ধরে নেওয়া যায়, আগের মতোই শিক্ষার্থী ভর্তির সিদ্ধান্ত আছে।


বিভিন্ন স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সম্পর্কিত সকল প্রকার তথ্যের আপডেট পেতে  আমদের ফেসবুক পেজ ও গ্রুপে যোগ দিন ।

স্বীকারোক্তিঃ এখানে উপস্থাপিত সকল তথ্যই দক্ষ ও অভিজ্ঞ লোক দ্বারা ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করা। যেহেতু কোন মানুষই ভুলের ঊর্দ্ধে নয় সেহেতু আমাদেরও কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল থাকতে পারে।সে সকল ভুলের জন্য আমরা আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী এবং একথাও উল্লেখ থাকে যে এখান থেকে প্রাপ্ত কোন ভুল তথ্যের জন আমরা কোনভাবেই দায়ী নই এবং আপনার নিকট দৃশ্যমান ভুলটি আমাদেরকে নিম্নোক্ত মেইল / পেজ -এর মাধ্যমে অবহিত করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

ই-মেইলঃ admin@admissionwar.com অথবা এইখানে ক্লিক করুন।

admissionwar-fb-pageaw-fb-group

২ Comments

  1. এই ওয়েবসাইটে ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে কোনো আপডেট পাচ্ছি না যে?

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button